অধ্যায় ৫ :পণ্য ও পণ্যের মূল্য নির্ধারণ

উৎপাদন ব্যবস্থাপনা ও বিপণন / উৎপাদন ব্যবস্থাপনা ও বিপণন (২য় পত্র)

অধ্যায় ৫ :পণ্য ও পণ্যের মূল্য নির্ধারণ

গুরুত্বপূর্ণ টপিক সমূহ 

১.পণ্যের   ধারনা

 ২.  পণ্যের শ্রেণীবিভাগ 

৩.পণ্যের  স্তরসমূহ 

৪.   পণ্যের জীবন চক্র 

৫.পণ্যের মূল্য নির্ধারণ পদ্ধতি 


 পণ্যের ধারণা : 

পণ্য হলো মানুষের অভাব মেটাতে সক্ষম বিনিময় মূল্য আছে বাজারে বিক্রয়ের জন্য উপস্থাপন করা হয় এবং শারীরিক ও মানসিক তৃপ্তি প্রদান করে। 

পণ্য ক্রেতার মৌলিক ওমর্যাদাগত চাহিদা পূরণে সক্ষম দৃশ্যমান অদৃশ্যমান উভয়ই হতে পারে ।


 

পণ্যের শ্রেণীবিভাগ 

পণ্য কে দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে ভোগ্যপণ্য ও শিল্পপণ্য 

ভোগ্যপণ্য

 যেসব পণ্য চূড়ান্ত ভোক্তা  ব্যবহার বা ভোগ করার উদ্দেশ্যে বিক্রয় করা হয় সে গুলোকে ভোগ্যপণ্য বলে। যেমন :সুবিধা পণ্য, শপিং পণ্য, বিশিষ্ঠ পণ্য,   অযাচিত পণ্য।

এখন আমরা এই সকল পণ্যের সম্পর্কে বিস্তারিত জানব। 

সুবিধা পণ্য : যেসব পণ্য যেসব ভোগ্যপণ্য ভোক্তারা তাদের আশপাশ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে কিনতে পারে তাকেই সুবিধা পণ্য বলে। যেমন :মাছ, মাংস,  চাল, ডাল, চিনি।

সুবিধা পণ্য কে তিন ভাগে ভাগ করা হয়েছে অত্যাবশ্যকীয় পণ্য, জরুরি পণ্য, লোভনীয় পণ্য। 

শপিং পণ্য :যেসব পণ্য ক্রেতারা সময় নিয়ে চিন্তা ভাবনা করে ঘুরেফিরে দেখে পূর্ণমান  প্রভৃতি যাচাই করে কিনে থাকে তাকে শপিং পণ্য বলে। যেমন :আসবাবপত্র স্বর্ণলঙ্কা গাড়ি ফ্ল্যাট। 

শপিং পণ্য কে দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে। সমজাতীয় শপিং পণ্য,  অসম জাতীয় শপিং পণ্য।

বিশিষ্ট পণ্য: যেসব   ভোগ্যপণ্য বিশেষ ধরনের অর্থাৎ উন্নত প্রযুক্তি ও কারিগরি নৈপুণ্য দ্বারা তৈরি পৃথক বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন বা ব্র্যান্ড পরিচিতি আছে এবং যার জন্য বিশেষ ধরনের তার আকর্ষণ থাকে তাকে বিশিষ্ট পণ্য  বলে। যেমন :মার্সিডিজ গাড়ি এইচপি ল্যাপটপ আর এ ডি ও রাডো ঘড়ি ইত্যাদি। 

অযাচিত পণ্য :যেসব পণ্য সম্পর্কে ক্রেতাদের তেমন কোন ধারণা বা অভিজ্ঞতা নেই যা তারা কখনো দেখেনি বা দেখলেও ক্রয়ের চিন্তা করেনি সে জাতীয় অন্যকে অযাচিত পণ্য বলে। যেমন :সৌরশক্তি চালিত গাড়ি অযাচিত  পণ্য কে দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে 

১. নতুন  অযাচিত পণ্য 

2. নিয়মিত অযাচিত পণ্য

শিল্পপণ্য 

যেসব পণ্য নতুন পণ্য উৎপাদনে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে সহায়তা করে তাকে শিল্পপন্য বলে। সাধারণত বৃহৎ উৎপাদনের জন্য শিল্প পণ্য ব্যবহার হয়ে থাকে শিল্পপণ্য কে তিন ভাগে ভাগ করা হয়েছে 

১. কাঁচামাল ও খুচরা যন্ত্রাংশ 

২. মূলধন জাতীয় পণ্য 

৩. সরবরাহ ও সেবা পণ্য 

 কাঁচামাল খুচরা যন্ত্রাংশ: কাঁচামাল ও খুচরা যন্ত্রাংশ শিল্প ক্ষেত্রে পণ্য উৎপাদন ও কোন প্রক্রিয়াকরণের কাজে ব্যবহার হয়। শিল্পপণ্য উৎপাদনে কাঁচামাল ও যন্ত্রাংশের ব্যবহার অপরিহার্য। 

মূলধন জাতীয় পণ্য: মূল উৎপাদন কাজ পরিচালনার জন্য যেসব পণ্য শিল্পক্ষেত্রে একবার ক্রয়ের পর বহু বছর ব্যবহার করা যায় তাকেই মূলধন জাতীয় পণ্য বলে। যেমন: ভারী যন্ত্রপাতি, আনুষঙ্গিক যন্ত্রপাতি। 

সরবরাহ ও সেবা পণ্য :অত্যন্ত সংক্ষিপ্ত মেয়াদে পণ্য বা  যা চূড়ান্ত পণ্যের অংশ হয় তবেই দৈনন্দিন কার্যক্রমে চালনায় পণ্যের সহায়ক হিসেবে ব্যবহার করা হয় তাকে সরবরাহ ও সেবা বলে।


পণ্যের স্তর সমূহ 

একটি পণ্য বাজারে কতটা সফল ভাবে টিকে থাকবে তা নির্ভর করে। পণ্য পরিকল্পনাকারীর সঠিক সিদ্ধান্তের ওপর পরিকল্পনাকারী কতগুলো স্তর বিবেচনায় রাখে। পণ্যের স্তর কে 5 ভাগে ভাগ করা হয়েছে। 

১. মৌলিক সুবিধা: এটি হলো পণ্যের পরিকল্পনা এর প্রথম এবং কেন্দ্রীয় স্থর।   একটি পণ্য ক্রয়ের মাধ্যমে ক্রেতারা সাধারণভাবে যে উপকার বা সেবা আশা করে তাকেই মৌলিক সুবিধা বলে। 

২.মৌলিক পণ্য:মৌলিক সুবিধা বা অসুবিধা কে রূপান্তরের মাধ্যমে মৌলিক পণ্যে পরিণত করা হয়। একটি পণ্যের অন্তরকে ভিতরে রেখে বাইরে যে অবয়ব বা কাঠামো তৈরি হয় তাকে মৌলিক পণ্য  বলে । 

 ৩. প্রত্যাশিত পণ্য :পন্যের অন্তরতম সুবিধা এবং মৌলিক পণ্য এর সাথে অতিরিক্ত সুবিধা সংযোজনের মাধ্যমে এই স্তর তৈরি হয়। যেমন: হোটেলে অতিথির বিছানা পরিচ্ছন্ন রাখা পরিবেশ নিরিবিলি রাখা ইত্যাদি এটি পণ্যের তৃতীয় স্থান স্তর। 

  ৪. বর্ধিত পণ্য :এখানে বাজারে পণ্যের চাহিদা সৃষ্টির জন্য ক্রেতা কর্তৃক প্রত্যাশিত পণ্যের সাথে তুলনা করা হয়। এই স্তরে এই স্তর কে তাই সেবা স্তর বলা হয়। যেমন অনেক প্রতিষ্ঠান এই স্তরে বাড়তি সুবিধা প্রদানের মাধ্যমে সৃষ্টি করে মূলধনের সাথে যে বাড়তি সুবিধা প্রদান করা হয় তাকেই বলে বর্ধিতকরণ। 

 ৫. সম্ভাব্য পণ্য: বধিত পণ্যের সাথে ভবিষ্যতে যে ধরনের সুবিধা সংযোজিত হতে পারে সেই সুবিধা   সম্ভাব্য পণ্য।  পণ্যের পঞ্চম তম বা শেষ স্তর। এই ধরনের পণ্য ভবিষ্যৎ অবস্থা কি নির্দেশ করে।

সম্ভাব্য পণ্যের অস্তিত্ব বর্তমানে বাজারে নেই ভবিষ্যতে আসতে পারে।


 পণ্যের জীবন চক্র

একটি বাণিজ্যিক পণ্য বাজারে প্রথম  থেকে শুরু করে সম্পূর্ণ বিলীন হয়ে যাওয়া পর্যন্ত যতগুলো পর্যায়ে বা   স্তর অতিক্রম করে সেসব স্তর গুলোকে পণ্যের জীবন চক্র বলে। 

পণ্যের জীবন চক্রের স্তর কে স্তরকে পাঁচ ভাগে ভাগ করা হয়েছে

 1.   পণ্য উন্নয়ন স্তর :কোম্পানি বাজারে নতুন কোন পণ্য আনতে চাইলে অর্থাৎ কোন একটি নতুন পণ্যের ধারণা অনুসন্ধান থেকে শুরু করে বাণিজ্যিকভাবে পণ্যটি উৎপাদন পর্যন্ত স্তরকে পণ্য উন্নয়ন স্তর বলে। 

2. সূচনা স্তর বা পরিচিতি স্তর: পণ্যটি যখন সর্বপ্রথম বাজারে উপস্থাপন করা হয় তখনই সূচনা  শুরু হয়। এই স্তরে পণ্যটি গ্রাহকের নিকট পরিচিতি লাভ করে এবং ধীরে ধীরে ক্রেতারা পণ্যটি ক্রয় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। এই স্তরে পণ্যের প্রসার কে গুরুত্ব দেয়া হয়। 

3.  বিক্রয় বৃদ্ধির স্তর :পরিচিতি বা সূচনা স্তরের সব ধরনের বিপণন কার্যক্রমের মাধ্যমে পণ্যটি বাজারে স্বীকৃতি লাভ করে। এবং প্রথম গ্রহণকারী ক্রেতা  ও    ভোক্তাদের দেখাদেখি অন্যান্য ভোক্তা ক্রয় করতে থাকলে পণ্য প্রবৃদ্ধি স্তরে উপনীত হয়। 

4.পূর্ণতা স্তর:এই স্তরে এসে বিক্রয়ের প্রবৃদ্ধি হ্রাস পেতে থাকে এবং সর্বোচ্চ স্থায়িত্ব থাকে। পূর্ববর্তী বিক্রয় বৃদ্ধি স্তরে ক্রেতা ভোক্তাদের আগ্রহ ও অধিক মুনাফা দেখে এই স্তরে নতুন নতুন প্রতিযোগী বাজারে প্রবেশ করে এবং শিল্পের বিক্রয় বৃদ্ধি পেয়ে সর্বোচ্চ চূড়ায় পৌঁছায় । 

5.পতন স্তর: বাজারে পণ্যের বিক্রয় যখন ক্রমাগতভাবে নিম্নমুখী হয় এবং মুনাফা শূন্যের দিকে ধাবিত হয় তাকে পতন স্তর বলে। একটি পণ্যের জীবন চক্রের শেষ ধাপ।


 পন্যের মূল্য নির্ধারণ পদ্ধতি 

ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো সাধারণত দুটি চূড়ান্ত পদ্ধতির মধ্যবর্তী যেকোন একটি স্থানে মূল্য নির্ধারণ করে থাকে। 

একটি পর্যায়ে হচ্ছে সর্বনিম্ন মূল্যস্তর যেখানে কোন মুনাফা হবে না আর অপরটি হচ্ছে সর্বোচ্চ মূল্যস্তর যেখানে অতি উচ্চ মূল্যের জন্য নতুন আর কোনো চাহিদা তৈরি হয় না। 

সাধারণত চারটি উপাদান কেন্দ্র করে পণ্যের মূল্য নির্ধারণ করা হয়।

 ১. পণ্যের উৎপাদন ব্যয়

 ২. পণ্যের প্রতি ভোক্তার মনোভাব

 ৩. প্রতিযোগী পণ্যের মূল্য অভ্যন্তরের ও বাহ্যিক উপাদান। 

পণ্যের মূল্য নির্ধারণের জন্য কয়েকটি পদ্ধতি রয়েছে যেমন 

১.    ব্যয় বৃদ্ধি ভিত্তিক মূল্য নির্ধারণ  

2.     ক্রেতা ভিত্তিক মূল্য নির্ধারণ 

৩. প্রতিযোগিতা  ভিত্তিক মূল্য নির্ধারণ 

৪.চলমান হারে বা চলতি বাজারভিত্তিক মূল্যনির্ধারণ 

৫.দরপত্র মূল্য নির্ধারণ


Leave your thought here

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Free 10 Days

Master Course Invest On Self Now

Subscribe & Get Your Bonus!
Your infomation will never be shared with any third party